সুলাইমান সাদীর দুটি কবিতা

আমাদের গান
আমরা হামেশা অজানা জবানে আজান হাঁকছি
জলঘোলা রঙে নিজের নিয়মে নিজেকে আঁকছি

আমাদের স্মৃতি হয়ে উঠছে বিধ্বস্ত সময়ের রক্তাক্ত জামা
আমাদের গল্প হয়ে উঠছে সিগারেটের গন্ধবিহীন টার্কিশ ড্রামা

বলতে পারো জান, তুর্কিরা কখনো সিগারেট ফোঁকে না কেন
ওদের জন্য মৃত্যু কেবলই যুদ্ধবিহীন রূঢ়তর পরাজয় যেন

আমাদের বৃহত্তর জনগোষ্ঠী আমাদেরই ঘোর প্রতিদ্বন্দ্বী
আমাদের দেহগুলি সব মনদিল গোটানো বিকল প্রতিবন্ধী

আমরা নিজের খেয়ে পরের গান গাই
নিজেদের গান পরের গলায় তুলে দিয়ে সাজি হাইফাই

চলো ফিরে আসি
ঘাসের আদরে কাটানো বিকেলগুলো মিস করছি
মিস করছি মন খারাপ করা সেইসব সূর্যাস্ত
নদীর নামে মহামারী লিখে দিয়ে চলো আমরা ফিরে আসি যারযার কাছাকাছি
যার যেখানে ঘর, পড়ে আছে নিস্পাপ আদর
ফিরে আসি

ঘরপালানো ভোরগুলো খুব মিস করছি
মিস করছি ভরদুপুরে চষে বেড়ানো সেইসব গলিঘুপচি
বাতাসের নামে মহামারী লিখে দিয়ে চলো আমরা ফিরে আসি একদম পাশাপাশি
কাঁধে কাঁধ রেখে গেয়ে যাই জীবনের গান, মৃত্যুর শোকত্রোস্ত

আমার গায়ে সংক্রমিত তোমার গন্ধ খুব মিস করছি
মিস করছি দীর্ঘকবিতার মতো চুঁইতে থাকা পারস্পরিক চুম্বন
রোদের নামে মহামারী লিখে দিয়ে চলো এবার ফিরে আসি জলজ্যান্ত বাস্তবে
যেখানে আমাদের থাকার কথা, নিরিবিলি নিরাপদ আর সুখস্বর্গবাহী।

Facebook Comments